শুক্রবার ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

কুলাউড়ায় তাবিজের স্পর্শে শিক্ষক নিয়োগ ভন্ডুল : তান্ত্রিক আটক

শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১     198 ভিউ
কুলাউড়ায় তাবিজের স্পর্শে শিক্ষক নিয়োগ ভন্ডুল : তান্ত্রিক আটক

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি : তাবিজের স্পর্শে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেয়া আতিকুর রহমান সোহেল অজ্ঞান হয়ে যান। তাৎক্ষণিক ওই শিক্ষককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এতে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে হট্রগোল বাঁধে। সেই সাথে ভুন্ডুল হয়ে যায় নিয়োগ পরীক্ষা। ঘটনাটি ঘটেছে ২৩ জানুয়ারি শনিবার বেলা ১২ টায় কুলাউড়া উপজেলার শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা ছিলো ২৩ জানুয়ারি শনিবার। প্রধান শিক্ষক পদে ৫ জন প্রার্থী এবং সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে ৪ জন প্রার্থী নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেন। নিয়োগ পরীক্ষা নিতে উপজেলা, জেলা শিক্ষা অফিসের ও ডিজি অফিসের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

বিপত্তি ঘঠে নিয়োগ পরীক্ষার পূর্ব মুহুর্তে। লিখিত পরীক্ষার জন্য হলরুমে প্রবেশের মুহুর্তে স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রধান শিক্ষক পদে আবেদনকারী আতিকুর রহমান সোহেল বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরি বিপুল বিশ^াস (৪৮) কে কুশল জিজ্ঞেস করেন। এসময় বিপুল বিশ^াস একটি তাবিজ ওই শিক্ষকের গায়ে স্পর্শ করলে অজ্ঞান হয়ে মেঝেতে পড়ে যান।

প্রধান শিক্ষক পদে পরীক্ষায় অংশ নিতে আসা সোহেলকে উদ্ধার করে প্রথমে ব্রাহ্মণবাজারের একটি বেসকারি ক্লিনিকে এবং পরবর্তীতে তাকে সিলেট ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি ওই হাসপাতালের আইসিইউতে আছেন বলে তাঁর ভাই ফয়জুর রহমান ছুরুক জানান।

ক্ষুব্ধ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যরা নৈশ প্রহরি বিপুল বিশ^াসকে গণধোলাই দিয়ে বাথরুমে আটকে রাখে। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষন রায় ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক বিপুল বিশ^াসকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

আটক বিপুল বিশ^াস জানান, সোহেল স্যার আমার খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন। তিনি আমার কাছে নিয়োগ পরীক্ষার জন্য আশির্বাদ চেয়েছিলেন। আমি তাকে ধর্ম ও প্রভূর দোহাই দিয়ে তাবিজ দিয়ে আশির্বাদ করতে উনার শরীরে স্পর্শ করি। তখন দেখতে পাই, তিনি অসুস্থতা বোধ করছেন। আমি কোন খারাপ উদ্দেশ্যে কিছু করিনি।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নুরুল ইসলাম খান বাচ্চু জানান, আমার সামনে এই ঘটনাটি ঘটে। প্রধান শিক্ষক পদে পরীক্ষা দিতে আসা আতিকুর রহমান সোহেল তাকে মাথা গুরানোর কথা বলেই পড়ে যান। তখণ তাকে উদ্ধার করে আমরা হাসপাতালে পাঠাই এবং নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করি।

কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ার জানান, পরিস্থিতি ঘোলাটে হওয়ায় আপাতত শিক্ষক নিয়োগ স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তীতে নিয়োগ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পুনরায় শিক্ষক নিয়োগ করা হবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:০৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com