শনিবার ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

শায়েস্তাগঞ্জে ৫৫ টি পরিবার স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে

শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১     66 ভিউ
শায়েস্তাগঞ্জে ৫৫ টি পরিবার স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে

মোঃ আব্দুর রকিব, শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ): রঙিন টিনে স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ৫৫ টি পরিবার। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে তাদের চোখে মুখে এক অন্যরকম উচ্চাস, যেন সারাজীবনের অধরা স্বপ্নের হাতছানি ধরা দিয়েছে তাদেরকে। সহায় সম্বলহীন জহুরা বিবি কারো কারো বাড়িতে কর্ম করে কোনরকম দিনাতিপাত করেন। বেলাশেষে এসে মাথা গোজার নিজের কোন জায়গা ছিল না। রাস্তার পাশে খুড়ে ঘর বানিয়ে দিন পাড় করছিলেন। অবশেষে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার এ নারী ঘর পাচ্ছেন নিজের নামে। সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পে নাম এসেছে তারও। নগেন্দ্র সরকার স্ত্রী নেই, এক সন্তান নিয়ে তিনি, দিনমজুরের কাজ করে কোনরকম সংসার চালাতেন। নেই নিজের কোন জায়গা জমিন, অন্যের বাড়িতে ঘর বানিয়ে থাকতেন তিনি। তিনি ও মাথাগোজার ঠাই পাচ্ছেন।

জাহেরা বেগম নামে এক নারী বলেন মানুষের বাড়িতে থাকতাম। শেখ হাসিনার কল্যানে নিজের একটি ঘর হচ্ছে তাও আবার পাকা। যা আমার কাছে স্বপ্ন ছাড়া কিছুই না। নানু মিয়া বলেন সারা জীবন স্বপ্ন দেখতাম নিজের ঘর হবে। কিন্তু পুরন করতে পারিনি। প্রধানমন্ত্রীর বৌদলতে স্বপ্ন পুরন হইতাছি। শেখ বেটির জন্য দোয়া করি আল­াহ যেন তার হায়াত আরোও বাড়িয়ে দেন। শুধু তারাই নন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় এরকম ৫৫ টি পরিবার পাচ্ছে তাদের স্থায়ী ঠিকানা। তাদের মাথা গোঁজার কোন ঠাঁই ছিল না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিয়েছেন, ঘর পেয়ে তারা খুব খুশি।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় মানুষের জন্য মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন এতে অসহায় মানুষগুলো আনন্দে জীবনযাপন করতে পারবে এতেই পুরণ হচ্ছে তাদের বুনিয়াদি স্বপ্ন। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় ‘জমি নেই ঘর নেই গৃহহীন দরিদ্র শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার দুইটি ইউনিয়নের ৫৫টি অসহায় পরিবারকে ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। এই প্রকল্পের কাজ ২০২০ সালের ১লা নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে ২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি শেষ হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২৩ জানুয়ারি ঘরগুলো গৃহহীন ও দরিদ্র পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবেন।

উপজেলা প্রকল্প অফিস স‚ত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার ২ টি ইউনিয়নের মধ্যে শায়েস্তাগঞ্জ ইউনিয়নের লাদিয়া গ্রামে ১৭ টি ও আলাপুর গ্রামে ২৩ টি। ব্রাক্ষণডুরা ইউনিয়নে কেশবপুর গ্রামে ১৫ টি ঘর নির্মান করা হয়েছে। উপজেলার ৫৫ টি সহায় সম্বলহীন পরিবার পাচ্ছে এ স্বপ্নের ঠিকানা। বারান্দাসহ সাড়ে ১৫ ফুট প্রস্থ ও সাড়ে ১৯ ফুট দৈর্ঘ্য প্রতিটি ঘর, রান্নাঘর ও টয়লেট নির্মাণ বাবদ এক লাখ একাত্তর হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি ঘর নির্মাণ বাবদ ১০ ফুট ইটের খুঁটি ৬টি ও ৬ ফুট ইটের খুঁটি ৩টি ব্যবহার করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নিয়ম অনুযায়ী প্রকৃত ভ‚মিহীন ও গৃহহীনরাই এই প্রকল্পের মাধ্যমে ঘর পেয়েছে শায়েস্তাগঞ্জে। এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ মিনহাজুল ইসলাম বলেন প্রকৃত গৃহ ও ভুমিহীনদের ঘর গুলি বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। যাদের কোন সহায় সম্বল নাই তারাই মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাচ্ছে। উপজেলায় ৫৫ টি ঘর বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে সরকারি বিধি মেনে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। গঠিত কমিটি যাচাই বাছাই করে মালামাল ক্রয় করছেন এবং ঘর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করছেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:২২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com