শনিবার ২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

দোয়ারায় ত্রান নিতে এসে চেয়ারম্যানের হাতে মার খেলেন  ৮০ বছরের বৃদ্ধা

শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০     94 ভিউ
দোয়ারায় ত্রান নিতে এসে চেয়ারম্যানের হাতে মার খেলেন  ৮০ বছরের বৃদ্ধা
আশিক মিয়া, দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ দোয়ারাবাজারে ত্রানের চাল নিতে এসে চেয়ারম্যানের হাতে বেদরক মার খেলেন ৮০ বছরের বৃদ্ধা মহিলা। ঈদুল আযহা উপলক্ষে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া উপহার (ভিজিএফ) এর ১০ কেজি চাল নিতে এসে ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দায়  বেদরক মার খেলেন বাংলাবাজার ইউনিয়নের পাইকপাড় গ্রামের বয়োবৃদ্ধ দুলেনা খাতুন(৮০)।
এঘটনার মহিলার বক্তব্য ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেইসবুক মাধ্যমে।  ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদে।  ঈদের দুইদিন আগে (৩০ জুলাই) বৃহস্পতিবার  সকাল থেকেই প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহারের (ভিজিএফ) এর চাল প্রতিজনে ১০ কেজি করে বিতরন করা হচ্ছিল। এসময় প্রতি পাচজন কার্ডধারীকে ৫০ কেজির এক বস্তা চাল দেয়া হয়, ঐ ৫০ কেজী ওজনের চালের বস্তা বৃদ্ধা মহিলা একা নিতে না পারায়(দ্রুত সরাইতে পারেনাই) বৃদ্ধা দুলেনা খাতুন(৮০) র গালে উপর্যুপরি কয়েকটা চর থাপ্পড় মারেন বলে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে  অভিযোগ উটেছে গোটা এলাকা জুড়ে। এনিয়া বাংলাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন চৌধুরী রানা পড়েছেন বিতর্কের মধ্যে।
এব্যপারে ঐ দিন ঘটনার স্তলে উপস্থিত থাকা  ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম বলেন, দুলেনা খাতুনের (বৃদ্ধা মহিলা) সাথে চেয়ারম্যান সাহেবের যে ঘটনা ঘটেছিল,  বিতরণ শেষে আমরা সকল ইউপি সদস্যরা মিলে ঘটনার মিমাংশা করে দিয়েছি।
এব্যাপারে দুলেনা খাতুন (৮০) সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কান্নাজড়িত কন্টে বলেন, আমার এই মরন কালে এত লোকের সামনে চেয়ারম্যানের হাতের চড় কেয়ে বেজ্জতি হতে হবে জানতামনা, এর আগে আমার মরন হলোনা কেন।
বৃদ্ধা মহিলা দুলেনা খাতুন (৮০) ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, আমি ৫০ কেজি চালের বস্তা উটাইয়া নিতে না পারায় চেয়ারম্যান সাবে আমারে কয়েকটা চড় থাপ্পড় মারেন। এসময় রিলিফ নিতে আসা লোকজন ও কয়েকজন মেম্বারও সামনে ছিলেন কেউ কিছু বলেনাই চেয়ারম্যানের ভয়ে । আমি প্রশাসনের কাছে এর সঠিক বিচার চাই।
এব্যাপারে বাংলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন চৌধুরী রানা বলেন, দুলেনা খাতুন আমার মায়ের বয়সী লোক আমি উনাকে চড় থাপ্পর মারিনাই। রিলিফ নিতে আসা লোকজনের লাইন টিক করতেগিয়ে কোন সময় দাক্কা লাগতে পারে,  এর জন্য আমি উনার সাথে রিলিফ বিতরণ শেষে ক্ষমা চেয়ে নিছি। এখন আমার প্রতি পক্ষের লোকজন আমাকে হেওপতিপন্ন করার জন্য এঘটনা সাজিয়েছে।
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com