বুধবার ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

দোয়ারায় কৃষি প্রণোদনা নিয়ে অনিয়ম দুর্ণীতির অভিযোগ 

মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২০     143 ভিউ
দোয়ারায় কৃষি প্রণোদনা নিয়ে অনিয়ম দুর্ণীতির অভিযোগ 
আশিক মিয়া, দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি : দোয়ারাবাজার উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার সোহরাব হোসেনের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্ণীতির অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। কৃষি পুনর্বাসন, কৃষি প্রনোদনা সহ সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন এলাকার ভুক্তভোগী কৃষক রিয়াদ আহমদ ।
সম্প্রতি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তররের মহা পরিচালক, প্রকল্প পরিচালক সমন্নিত বালাই ব্যাবস্থাপনা প্রকল্প কামার বাড়ি, প্রকল্প পরিচালক ডাল তেল ৩য় পর্যায় প্রকল্প,প্রকল্প পরিচালক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সিলেট, জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জ, দুর্ণীতি দমন কমিশন, উপ-পরিচালক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুনামগঞ্জ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার দোয়ারাবাজার সহ সকল দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। বীজ ক্রয় কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা থাকলেও আছেন শুধু কাগজে কলমে। বীজ ক্রয় করার সময় নির্বাহী কর্মকর্তাকে কিছুই জানানো হয়নি বলেও জানাগেছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,  চলমান কৃষি প্রণোদণার ভালো মানের বীজ ক্রয় করার কথা থাকলেও সোহরাব হোসেন নিজ দায়ীত্বে খোলা বাজার থেকে নিম্নমানের বীজ ক্রয় করে কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। বীজের মান ভালো না থাকায় কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ারও আশঙ্কাও রয়েছে । এছাড়া কৃষি মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন রাজস্ব প্রকল্পের সমস্ত সমন্বয় বিল ভাউচার ও ব্যাংকের চেক বহি অফিস সহকারীর কাছে থাকার কথা থাকলেও নিয়ন্ত্রণ করছেন সোহরাব হোসেন। অফিসের সব কাজ তার মত করে পরিচালনা করে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে ।
আন্ত পরিচর্যা ও বেড়ার নির্মাণের জন্য কৃষকদের নামে যে চেক দেওয়া হয় সেই চেক সোহরাব হোসেন নিজেই ব্যাংক থেকে উত্তোলন করে নিয়ে আসেন অথবা কৃষক ছাড়াই অন্য যেকোন লোক দিয়ে টাকা উত্তোলন করে নিজেই আত্মসাতৎ করেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। কৃষি মন্ত্রনালয়ের অধীনে সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা আইপিএম প্রকল্পের টাকা বিভিন্ন স্কুলের নাম করণ ও নাম মাত্র ফটো সেশন করে টাকা আত্মসাত করেছেন তিনি। কৃষি মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন নিরাপদ ফসল উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে জৈব কৃষি বালাই ব্যবস্থাপনায় কৃষকদের জন্য যে সকল উপকরণ ক্রয় করে কৃষকদের মাঝে বিতরন করার কথা থাকলেও ফাইলটি তিনি নিজেই পরিচালনা করার কারণে উপজেলার কৃষকগণ উপকরণ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।
কামার যান্ত্রিকি প্রকল্পের আওতাধীন কৃষকদের মাঝে সরকারি ভর্তুকি মূল্যে যে সকল মেশিনারী কৃষকদের মাঝে দেওয়ার কথা, সেই সকল মেশিনারি  সোহরাব হোসেন তার নিকট আত্মীয়দের নামে দেয়া হয়। শুধু তাই নয় রাজস্ব প্রদর্শনী,ডাল, তেল, বাদাম সড়িষা প্রদর্শনীতে বেশী সার ও বীজ থাকে অধিকাংশ বরাদ্ধ দেয়া হয় তার নিজ আত্মীয় স্বজনের মাঝে। ইউনিয়ন ওয়ারী খুচরা সার বিক্রেতার নিয়োগেও সে ব্যাপক অনিয়ম করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সুরমা ইউনিয়নের রাবারডাম্প বাজারের সার বিক্রেতা এব্যাপারে হাইকোর্ট পর্যন্ত রিট করেছেন ডিলারসিপ নিয়ে। অফিসের সব কাজেই সোহরাব হোসেনের দৌরাত্ম ও প্রভাব আদিপত্ত বিস্তার রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
বর্তমানেও সরকার কর্তৃক কৃষি প্রনোদনা ও কৃষি পুনর্বাসনের জন্য বীজ,বাদাম ও মশুর ও অন্যান্য বীজ বাহির থেকে ডিলারের মাধ্যমে উন্নত মানের বীজ ক্রয় করার কথা থাকলেও সোহরাব হোসেন নিজেই পচন্দনিয় এলাকা থেকে বীজ সংগ্রহ করে খোলা বীজ কৃষকদের মাঝে বিতরণ করেন। এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সকল দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন দোয়ারাবাজারের বঞ্চিত কৃষক রিয়াদ আহমদ।
এ বিষয়ে উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার সোহরাব হোসেন বলেন, আমার কাছে অফিসের কাগজ পত্র থাকেনা। এসব প্রকল্পের বিষয়ে আমরা কোন দায়িত্ব নেই। উর্দনত কতৃপক্ষ অফিসের কাজ করার জন্য আামাকে বলেছেন। এর জন্য আমি অফিসে কাজ করি। তাই এসব দুর্নীতির সাথে আমার সম্পৃত্ত থাকার কোন সুযোগ নেই। আমার পরিবারের সবাই চাকরিজীবী আমার দুর্নীতি করার মন মানষিকতা নেই। আমার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করা হয়েছে সবটাই মিথ্যা।
এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার শেখ মোহাম্মদ মহসিন বলেন, আমি ছুটিতে আছি জানতে পারছি একটা অভিযোগ করা হয়েছে।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা বলেন, বীজ ক্রয় কমিটিরতে আমি আছি কিন্তু বীজ ক্রয় করার সময় আমাকে কেউ জানায়নি। একটা অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পুর্বক ব্যাবস্তা নেয়া হবে।
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:১৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com