রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

গোয়াইনঘাটে রাস্তার গাছ কেটে সাবাড় খবর নেই কর্তৃপক্ষের

শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০     61 ভিউ
গোয়াইনঘাটে রাস্তার গাছ কেটে সাবাড় খবর নেই কর্তৃপক্ষের
গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি : গোয়াইনঘাটে দেদারছে সরকারী গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালী কিছু ব্যাক্তি, অথচ দেখভাল তো দূরের কথা কোন খবরই নেই কর্তৃপক্ষের। গাছগুলো সরকারের কোন দপ্তর থেকে লাগানো হয়েছে বা কারা দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে তারও কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে রাস্তার পাশের অবহেলায় থাকা ছোট বড় গাছগুলো পর্যায়ক্রমে কেটে সাবাড় করে ফেলছে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা।
স্থানীয়রা জানায়, প্রায় ২০ থেকে ২৫ বছর পূর্বে গোয়াইনঘাটের বিভিন্ন সড়কের পাশে গাছ রোপন করা হয় সরকারি ভাবে। তারই ধারাবাহিকতায় উপজেলার আলীরগাঁও ইউনিয়নের সাতাইন-কোওর বাজার সড়কের মহিপুর পর্যন্ত দীর্ঘ ৫ কিলোমিটার রাস্তার দুই পাশে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় হাজার খানেক গাছ লাগানো হয়। গাছগুলো লাগানোর পর থেকেই অযত্নে অবহেলায় বড় হতে থাকে। কর্তৃপক্ষের উদাসিনতা ও সঠিক দেখভাল না থাকায় পর্যায়ক্রমে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা গাছগুলো কেটে নিয়ে বিক্রি করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ৫ কিলোমিটার রাস্তার দুই পাশে বর্তমানে শতাধিক গাছও চোখে পড়েনি । যে গাছগুলো দাড়িয়ে আছে সেগুলোর ডালপালাও কেটে নেড়া করে দিয়েছে স্থানীয়রা। তুলে নিয়ে গেছে গাছের মোড়া পর্যন্ত। স্থানীয়দের দেয়া তথ্যমতে অনেক গাছ ইতিমধ্যে চুরি হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে, অর্জুন গাছ, নিম গাছ, বাবলা গাছ, কড়ই গাছ, বেলজিয়ম, আকাশি গাছসহ প্রায় ৭-৮ প্রজাতির গাছ।
নাম উল্লেখ না করার শর্তে জনৈক ব্যাক্তি বলেন, আজ থেকে আনুমানিক ২০/২৫ বছর পূর্বে রাস্তার দুপাশে সরকারীভাবে হাজারের ও অধিক গাছ লাগানো হয়েছিলো। সে সময় গাছগুলো পরিচর্যার জন্য নিয়োজিত ছিলো ফরেষ্ট্রর অফিস। কিন্তু গাছগুলো যখন বড় হতে থাকে তারপর থেকে আর কাউকে কোন খবর নিতে দেখা যায়নি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তি বলেন, গাছগুলোর অভিভাবক না থাকায় পর্যায়ক্রমে স্থানীয় প্রভাবশালীরা দিনে দুপুরে গাছের ডাল পালা ও গভীর রাতে গাছ কেটে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করেছে। আবার অনেকে গাছের ডাল কেটে নেড়া করে ডালপালা নিয়ে যাচ্ছে। হাজারের ও অধিক গাছের মধ্যে এখন হাতে গোনা কয়েকটি গাছ রয়েছে।
তারা আরো বলেন, গাছগুলোর ডালপালা যেভাবে কেটে নেড়া করা হয়েছে তাতে বেশিদিন আর গাছগুলো বাঁচার সম্ভাবনা নেই। গাছগুলো সরকারের কোন দপ্তর থেকে লাগানো এবং দেখভালের দায়িত্বে কারা নিয়োজিত এব্যপারে খোঁজ নিয়েও কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছে না।
স্থানীয়রা গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃষ্টিআকর্ষন করেন।
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৯:৩৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com