বুধবার ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্বম্ভরপুরের পালিয়ে যাওয়া শিশুদের ফিরিয়ে দিল দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ

মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯     226 ভিউ
বিশ্বম্ভরপুরের পালিয়ে যাওয়া শিশুদের ফিরিয়ে দিল দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ

কাজী জমিরুল ইসলাম মমতাজ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:  সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর থানা এলাকার বাঘবেড়া এলাকা থেকে পালিয়ে আসা  আতাবুর রহমান (১০) ও রিয়াজ মিয়া(১১) নামে দুই শিশুকে তাদের অভিভাবকদের কাছে তুলে দিয়েছেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার সকাল বিশ্বম্ভরপুর থানা এলাকার বাঘবেড় গ্রাম থেকে শিশুদের পিতা-মাতা ও পরিবারের লোকজনদের সাথে অভিমান করে বাড়ী থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। ঐদিন বিকাল বেলা দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানাধীন পাগলা বাজারে যাত্রী বাহী বাস থেকে গাড়ী ভাড়া না থাকায় পাগলা বাজারে ঐদুই শিশুকে নামিয়া দেয়। এসময় ট্রাফিক পুলিশ শাহ আলম শিশুদের সাথে আলাপ কালে তাদের কথা বার্তায় সন্দেহ হওয়ায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করেন। তাৎক্ষণিক দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুননুর রশীদ চৌধুরী থানা পুলিশের মাধ্যমে থানায় নিয়ে আসেন। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের অভিবাবকদের জিম্মায় প্রদান করেন।

পালিয়ে যাওয়া শিশু আতাবুর রহমান(১০) বিশ্বম্ভরপুর থানা এলাকার বাঘবেড় গ্রামের মৃত হাসিম মিয়ার পুত্র এবং শিশু রিয়াজ মিয়া(১১) একই এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে।

সোমবার সকাল ১১ টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী শিশুদেরকে তাহাদের চাচা সিএনজি চালক নাজিম উদ্দিনের জিম্মায় প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা সেকেন্ড অফিসার এসআই জহিরুল ইসলাম,সাংবাদিক হোসাইন আহমদ, এএসআই সামছুন্নাহার বেগম প্রমুখ।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:১৭ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com