মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে বোর ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক, কৃষাণী

রবিবার, ০৩ মে ২০২০ 39 ভিউ
সুনামগঞ্জে বোর ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক, কৃষাণী
সাইফ উল্লাহ, সুনামগঞ্জ : হাওরে ১ ফসলী জমি, বোর ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক, কৃষাণী। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবং শ্রমিক সংকট না থাকায় সুনামগঞ্জের বোরো ধান কাটা প্রায় শেষ পর্যায়ে এখন। চলতি সপ্তাহে বজ্রপাত, শিলা ও বৃষ্টি না হওয়ায় কৃষক একটানা ধান কাটতে সক্ষম হয়েছেন। একই সঙ্গে আকাশ রৌদ্রজ্জ্বল থাকায় কাটা ধান শুকানোর কাজও করা গেছে সহজে। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত হাওরে ৮০ ভাগ ধান কাটা হয়ে গেছে। তবে গড়ে জেলায় ৬৭ ভাগ বোরো ধান কাটা শেষ বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।
সুনামগঞ্জ কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, এ পর্যন্ত জেলায় আবাদকৃত ২ লাখ ১৯ হাজার ৩০০ হেক্টর জমির মধ্যে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৭৬০ হেক্টর জমির ধান কাটা শেষ। এর মধ্যে হাওরে ৮০ ভাগ, হাওরের বাইরে ২৯ ভাগ ধান কাটা শেষ হয়েছে। গড়ে জেলায় ৬৭ ভাগ বোরো ধান কাটা শেষ হয়েছে। এই সপ্তাহেই হাওরের ধান কাটা শেষ হবে বলে জানিয়েছে ওই সূত্র।
এদিকে কৃষকরা জানিয়েছেন, গত এক সপ্তাহ ধরে আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ধান কাটা, মাড়াই ও শুকানো চলছে সমান গতিতে। শ্রমিক সংকট না থাকায় ধানও কাটা চলছে দ্রুত গতিতে। এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে দুই দিনের বৃষ্টি ও কালবৈশাখি ঝড়ে কৃষকদের মধ্যে ভীতি দেখা দেয়। ওই সময় একদিনে জেলায় হাওরের ক্ষেতে বজ্রপাতে চারজন কৃষক মারা যান। তবে এর পরেই আবহাওয়া অনুকুলে চলে আসে যা এখনো বহাল। এ কারণে প্রতিটি হাওরেই সমান গতিতে ধান কাটা চলছে। করোনাভয় উপেক্ষা করে কষ্টের বোরো ধান গোলায় তুলতে কৃষক কিষাণী এখন মাঠেই অবস্থান করছেন।
সরেজমিনে রবিবার, টগা, শনি, হাসুয়া, টাংগুয়া হাওরে গিয়ে দেখা যায়, এই হাওরের বেশিরভাগ ধানই কাটা শেষ। হাওরের ঝাউয়ার অংশ, গছিলাড়া অংশসহ কিছু অংশেল ধানকাটা প্রায় শেষ। এখন বিস্তৃত খোলা কান্দায় গড়ে ওঠা খলায় যন্ত্রে ধান মাড়াই করছেন কৃষক। কিষাণীরা খলায় ধান শুকাচ্ছেন। অনেকে শুকানো ধান গরুর গাড়ি, মহিষের গাড়িসহ ভ্যান গাড়ি করে নিয়ে যাচ্ছেন বাড়িতে।
শনির হাওরে আসান পুর গ্রামের কৃষক মাসুম মিয়া বলেন, আমি ২২ কেয়ার জমিতে ধান লাগিয়ে ছিলাম। এর মধ্যে ১৮ কেয়ার জমির ধানই কেটে নিয়েছি। কাটা ধান মাড়াই শেষে শুকানোর কাজও প্রায় শেষ। এই সপ্তাহেই বাকি ক্ষেতের ধান কাটা শেষ হবে বলে জানান তিনি।
সুনামগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সফর উদ্দিন বলেন, আমাদের দুশ্চিন্তা কেটে গেছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় দ্রুত গতিতে ধান কাটা, মাড়াই ও শুকানোর কাজ চলছে। এই সপ্তাহেই ধান কাটা শেষ হবে। অবশিষ্ট ফসল পাহাড়ি ঢল ও বন্যার ঝুঁকিতে নেই বলে জানান তিনি।
সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, বিভিন্ন হাওরে কৃষকদের ধান কাটা পরিদর্শন করেন ।
Facebook Comments
advertisement

Posted ৮:১৭ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৩ মে ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com