মঙ্গলবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শ্রীমঙ্গলে করোনার উপসর্গে মৃত্যুবরণকারীর সৎকার করলো একরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন ও পুলিশ

বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০     73 ভিউ
শ্রীমঙ্গলে করোনার উপসর্গে মৃত্যুবরণকারীর সৎকার করলো একরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন ও পুলিশ

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা বিকাশ দত্ত’র সৎকার করেছে একরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন নামের একটি সামাজিক সংগঠন ও পুলিশ।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম জানান- সংক্রমণবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করে ভোররাতে বীর মুক্তিযোদ্ধা বিকাশ দত্ত এর সৎকার করা হয়েছে। পরিবারের ইচ্ছায় রাতেই সৎকারের ব্যবস্থা করার রাষ্ট্রীয় সম্মন গার্ড অব অনার দেওয়া সম্ভব হয়নি বলে তিনি জানান। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন বলে পরিবারের লোকজন সন্দেহ করায় সৎকারের আগে বিকাশ দত্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরিবারের অন্যদের নমুনাও পরীক্ষা করা হবে। প্রতিবেদন আসার পূর্ব পর্যন্ত তারা কোয়ারেন্টিনে থাকবেন বলে তিনি জানান।

বৃহস্পতিবার ভোরে শ্রীমঙ্গল পৌর শ্মশানঘাটে হিন্দু ধর্মীয় রীতি অনুসরণ করে এই মুক্তিযোদ্ধার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। মুখাগ্নী করেন প্রয়াতের সন্তান বাপ্পা দত্ত। গত বুধবার (২৭ মে) রাত নয়টার দিকে তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের সবুজবাগ এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

একরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশনের দলের প্রধান এহসান জাকারিয়া জানান, শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নজরুল ইসলামের নির্দেশনায় ফাউন্ডেশনের সদস্যরা মুক্তিযোদ্ধা বিকাশ দত্তের সৎকার কার্য সম্পাদন করেন। শ্রীমঙ্গল পৌর শ্মশানে রাত ১টা ২০ মিনিটে সৎকার চলাকালে শ্রীমঙ্গল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব জসিম উদ্দিন ও মৃত্যুবরণকারী মুক্তিযোদ্ধার ছেলে বাপ্পা দত্ত উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বাসা থেকে ট্রাকে করে মুক্তিযোদ্ধার লাশ শ্মশানঘাট পর্যন্ত নিয়ে আসেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানাসহ শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের সদস্যরা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, ‘তিনি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ছিলেন পরিবারের লোকজনের এমন সন্দেহের প্রেক্ষিতে সৎকারের আগে বিকাশ দত্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরিবারের অন্যদের নমুনাও পরীক্ষা করা হবে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত পরিবারের সবাইকে কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।’

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৯:০৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com