শুক্রবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শৈত্যপ্রবাহে জনদুর্ভোগ চরমে

বুধবার, ১৫ জানুয়ারি ২০২০     92 ভিউ
শৈত্যপ্রবাহে জনদুর্ভোগ চরমে

মোঃ আব্দুর রকিব,  হবিগঞ্জ থেকে : এবারের জানুয়ারি মাস যেন শৈত্যপ্রবাহের মাস। একের পর এক প্রতিযোগীতামূলক শৈত্যপ্রবাহের কবলে দিশেহারা শায়েস্তাগঞ্জ উগজেলাসহ আশপাশের লোকজন। সপ্তাহ না যেতেই আবারও শৈত্যপ্রবাহের প্রভাবে ঘন কুয়াশায় ঢাকা পড়েছে এ অঞ্চল। এবারই প্রথম কুয়াশার সঙ্গী হয়েছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। গভীর রাতে প্রবল ঘণ কূয়াশার আস্তরণ যেন গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির আবহ সঙ্গীত রচনা করে টিনের চালে। তবে এই বৃষ্টি কণার উৎস আকাশে জমাট বাধা মেঘ নয়, ভারী কুয়াশার প্রভাব। হীম শীতল জলীয়বাষ্প জমাট বেধে অপেক্ষাকৃত ভারী হয়ে বৃষ্টির মতোই ঝরছে হবিগঞ্জ অঞ্চলে।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) শায়েস্তাগঞ্জ উগজেলাসহ অশপাশে ঘন কুয়াশা আর হীম বাতাসে জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে। এ ঘন কুয়াশার কারণে মহাসড়ক, আঞ্চলীক সড়ক, জলপথ এমনকি আকাশপথেও চলাচলে বিঘ্ন ঘটেছে। তীব্র শীতে গায়ে কাঁপন ধরেছে ফুটপাতে থাকা হত দরিদ্র মানুষ জনের। সরজমিনে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে ফ্লাটফরমে প্রায় অর্ধশতাধিক হত দরিদ্র মানুষ মেঝেতে শুয়ে শীতে কাঁপছেন। শহরের ফুটপাত ও বস্তির পরিবেশও এক-ই। শহুরে রাস্তায় ও বস্তিতে থাকেন এমন মানুষের অবস্থা আরও করুণ।

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে ফ্লাটফরমে বসবাসরত মো. আব্দুল বলেন, এবারের শীত অত্যধিক হওয়ার কারণে খুবই কষ্টে আছেন। অন্যান্যবারের মত এবার শীত নিবারণ সামগ্রী বিতরণকারী মানুষের সংখ্যা খুবই কম। শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের পাশে গড়ে উঠা বস্তিবাসি আমেনা জানালেন তার কষ্টের কথা, আমেনা বলেন, শীত নিবারণ উপকরণের অভাবে অতি কস্টে আছেন। গেল বছরে অনেক দানশীল মানুষ শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন। সে তুলনায় এবার খুবই কম। তাই চলমান শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতায় গ্রামের হত দরিদ্র মানুষজন খুবই দুর্ভোগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৫০ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com