রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিক্ষা সফরে ভারত যাচ্ছে প্রজ্ঞার বিজয়ী ৫শিক্ষার্থী

বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০     93 ভিউ
শিক্ষা সফরে ভারত যাচ্ছে প্রজ্ঞার বিজয়ী ৫শিক্ষার্থী

অজামিল চন্দ্র নাথ, গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি :  প্রজ্ঞা “মেধাবী মুখের সন্ধানে” মেধামূল্যায়ন প্রতিযোগিতা ২০১৮খ্রিস্টাব্দের চুড়ান্ত বিজয়ী শিক্ষার্থীরা আজ ভারত শিক্ষাসফরে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার (৩০জানুয়ারী) সকাল ১১.৩০ মিনিটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে কলকাতার উদ্দ্যেশ্যে শিক্ষার্থীসহ ১৫জনের দল যাত্রার কথা রয়েছে। সেখানে তারা পাঁচদিন অবস্থান করে ৫ফেব্রুয়ারী বুধবার স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে ৪টায় কলকাতা ত্যাগ করবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

শিক্ষাসফরে চুড়ান্ত বিজয়ী ৭শিক্ষার্থী যাওয়ার কথা থাকলেও শারীরিক অসুস্থতা ও পাসপোর্ট জটিলতার কারনে সরকারী এম. সি. একাডেমী’র তাসফিয়া কাদের রিফাত ও নিশাত তাসনিয়া নওশিন অংশ নিতে না পারায় ৫শিক্ষার্থী এ সফরে অংশ নিচ্ছে।

সরকারী এম. সি. একাডেমী’র দিব্যেন্দু দাস দ্বীপ, ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের নিলয় দেবনাথ, ধারাবহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রয়াস দেবনাথ, ভাদেশ্বর সৈয়দ ইফতেখার আলী শিশু বিদ্যালয়ের প্রাপ্তি দাস ও ঢাকাদক্ষিণ হলিসিটি স্কুলের নওশীন কাইয়ূম শিক্ষা সফরে কলকাতা যাচ্ছে।

এ সফরে অংশ নিচ্ছেন হলিসিটি এডুকেশন ট্রাষ্টের চেয়ারম্যান অজামিল চন্দ্র নাথ, ভাইস চেয়ারম্যান সুকৃতি দেবনাথ ও সেক্রেটারী সাবিনা বেগম। এছাড়াও অভিভাবক প্রতিনিধি হিসেবে রয়েছেন ভাদেশ্বর সৈয়দ ইফতেখার আলী শিশু বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুহৃদ রঞ্জন দাস, ধারাবহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রিংকু বালা নাথ, খমিয়া পাতন শিশু শিক্ষা বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা হ্যাপী রাণী দাস, অভিভাবক প্রজয় দেব নাথ, আব্দুল কাইয়ুম আকন্দ, মুড়ারকিয়ার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দীলিপ কুমার দাস, শিশু শিক্ষার্থী প্রতীক দাস।

এরআগে গত বছরের ৫আগষ্ট হলিসিটি এডুকেশন ট্রাস্টের কার্যালয়ে ২০১৮খ্রিঃ চুড়ান্ত বিজয়ীদের নাম ঘোষনা করা হয়। এ প্রতিযোগিতাটি বছরব্যাপী পাঁচটি ধাপে শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগী করে তুলতে কাজ করে আসছে। প্রতিযোগিতায় ২০১৮ সালে সিলেট জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীগণ অংশগ্রহণ করে।

অংশগ্রহণকারীগণ প্রথমে বাচাই পর্ব, পরে মেধামূল্যায়ন লিখিত প্রতিযোগিতা, ৩য় ধাপে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত এবং শেষ পর্যায়ে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত হয়ে চুড়ান্ত ধাপে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পায়। অংশগ্রহণকারীগণ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপে বিজয়ী হওয়ার জন্য পুরস্কার পায় ও সর্বশেষ বিজয়ীরা ট্রাস্টের অর্থায়নে বিদেশ সফর করে। এর আগে ২০১৭ সালে বিজয়ীরা শিক্ষাসফরে নেপাল ভ্রমন করে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:২১ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com