শুক্রবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রঙতুলির আঁচড়ে ফুটে উঠছে প্রতিমার রুপ, বিশ্বনাথে ২৬ মন্ডপে পূজার প্রস্তুতি

রবিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯     102 ভিউ
রঙতুলির আঁচড়ে ফুটে উঠছে প্রতিমার রুপ, বিশ্বনাথে ২৬ মন্ডপে পূজার প্রস্তুতি

জাহাঙ্গীর আলম খায়ের, বিশ্বনাথ :  আসছে ৪ অক্টোবর শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে দেশব্যাপী সনাতন ধর্মবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। পূজার প্রস্তূতিতে সিলেটের বিশ্বনাথের মন্ডপগুলোতেও প্রতিমা তৈরির কাজে ব্যস্ত এখন শিল্পীরা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রতিমা তৈরি করতে যেমন ব্যস্ত রয়েছেন শিল্পীরা তেমনি সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন আয়োকরাও। আর দুর্গাপূজায় নাশকতা এড়িয়ে আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বভাবিক রাখতে গত বুধবার দুপুরে বিআরডিবি মিলনায়তনে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপস্থিতিতে সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে উপজেলা প্রশাসন।

এরআগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে থানা পুলিশের উদ্যোগে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের নিয়ে মতবিনিময় করা হয়। সব মিলিয়ে দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে উপজেলা জুড়ে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি।

এ বছর ৮ উপজেলায় সার্বজনীন ২১টিসহ ব্যক্তিগত ৫টি মিলিয়ে ২৬টি মন্ডপে এখন প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। কোন কোন মন্ডপের প্রতিমাগুলোকে যতœসহকারে রোদে শুকানো হচ্ছে। আবার কোন কোন মন্ডপের জন্যে প্রতিমা বাইরে থেকে কিনে আনার প্রস্তুতি চলছে। তবে, প্রতিমা তৈরির সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও বাকি আছে কেবল শিল্পীদের রঙতুলির আঁচড়। আর রঙতুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে তৈরী করা প্রতিমার আসল রুপ।

প্রতি বছরের মতো এবারও ঢাকা, চট্রগ্রাম এবং সিলেটের মৌলভী বাজারসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শিল্পীরা বিশ্বনাথে এসে প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন। উপজেলার বিভিন্ন মন্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, বিশ^নাথ পুরান বাজার, কালিগঞ্জ বাজারের কালিবাড়ি, দিঘলীর শিব ও দূর্গাবাড়ি, বাগিচা বাজারের কালিবাড়ি, বৈরাগী বাজারের বৃন্দাবন জিউর আশ্রমে প্রতিমা তৈরির কাজসহ অন্যান্য কাজও শেষ পর্যায়ে রয়েছে। ২৬টি মন্ডপের অধিকাংশ মন্ডপে প্রতিমায় রঙ দেয়া ছাড়া প্যান্ডেলসহ সকল প্রস্তূতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তবে, এবার ঝুঁকিপূর্নের তালিকায় ১২টির মন্ডপ রয়েছে। এর মধ্যে অত্যাধিক ঝুঁকিতে রয়েছে ৪টি মন্ডপ। অধিক ঝুঁকিতে থাকা মন্ডপগুলো হচ্ছে, বিশ্বনাথ পুরান বাজার পূজা উদযাপন পরিষদ, দিঘলী শিব ও দূর্গাবাড়ি মন্দির, কালিগঞ্জ বাজারের কালিবাড়ি মন্দির এবং বৈরাগী বাজারের শ্রীশ্রী বৃন্দাবন জিউর আশ্রম।

সকল প্রস্তূতি সম্পন্ন করা হয়েছে জানিয়ে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার দাশ এ প্রতিবেদককে বলেন, প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ, শুধু রঙের কাজ বাকি। প্রশাসনসহ মুসলিমদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জাানিয়ে তিনি বেলন, বিশ^নাথ উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলায় বসবাসরত মুসলিম ভাইদের সহযোগীতায় প্রতিবছরই দুর্গোৎসব সফল হয়, এবারও তাই হবে।

মৌলভী বাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার আশিধুন গ্রামের প্রতিমা শিল্পি বিধান আচার্য্য এ প্রতিবেদককে বলেছেন, তাদের হাতে এখনও সপ্তাহখানেক সময় বাকি আছে। আর রঙ দেওয়া সম্পন্ন করতে মাত্র ২/৩দিন সময় লাগবে। আজ শুক্রবার থেকে রঙ দেওয়া শুরু করা হবে। এ প্রতিবেদককে বলেন, পূজার নিরাপত্তায় থানা পুলিশের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে এবং সাদা পোষাকেও সর্বত্র পুলিশ মাঠে কাজ করবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:২৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com