মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিশ্বনাথে বিয়ের রাতে স্ত্রীর ভাইয়ের মামলায় প্রবাসী বর জেলে

জাহাঙ্গীর আলম খায়ের, বিশ্বনাথ (সিলেট) থেকে :   বৃহস্পতিবার, ০১ আগস্ট ২০১৯ 141 ভিউ
বিশ্বনাথে বিয়ের রাতে স্ত্রীর ভাইয়ের  মামলায় প্রবাসী বর জেলে

প্রবাস ফেরত আহমদ আলী (৩৫) নামের এক বরকে বিয়ের রাতেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আর বর গ্রেফতারের খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে কনে রহিমাকেও (ছব্দ নাম) তার নিকটাত্মীয়রা পিত্রালয়ে নিয়ে গেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের পার্শ্ববর্তি ইলিমপুর গ্রামের লন্ডন ফেরত বর আহমদ আলীর বাড়িতে। তিনি ওই গ্রামের বাসিন্দা জমির আলীর ছেলে। মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) রাত ১২টার দিকে সমন্ধিকের দায়ের করা প্রতারণা মামলায় বিশ্বনাথ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন। এরপর তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার (০১ আগষ্ট) সিলেটের জকিগঞ্জ থেকে প্রথম স্ত্রীর বড়ভাই প্রবাসী সমন্ধিকের ১৫লাখ টাকার (ঢাকা মেট্রো চ ১৩-১৪১৫) নোহা গাড়িটি উদ্ধার করে পুলিশ। অভিযোগ রয়েছে, আহমদ আলী দেশে নানা অপরাধ কর্মকান্ড চালিয়ে যাবার পাশাপাশি বিয়ের নামে তরুণীদের সর্বনাশও করে যাচ্ছেন। তাছাড়া যতবারই পুলিশের কাছে ধরা পড়েছেন ততবারই ব্রিটিশ পাসপোর্ট ছিঁড়ে ফেলার মিথ্যা বয়ান দিয়ে যাচ্ছেন অভিযুক্ত আহমদ আলী। অথচ, ভোক্তভোগী, স্থানীয় ঘটক ও পুলিশের দাবি ব্রিটিশ পাসপোর্ট দেখিয়েই বার বার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন তিনি।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, যুক্তরাজ্যের ওল্ডহামে বসবাসকারী আহমদ আলী ২০১৪ সালের শেষের দিকে লন্ডন থেকে দেশে ফিরেন। তারপর ২০১৫ সালে বিশ্বনাথের দেওকলস ইউনিয়নের সৈয়দপুর (সদুরগাঁও) গ্রামের মৃত মাহমদ আলীর মেয়েকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর প্রতি রাতেই স্ত্রীকে নির্যাতন করতেন। ভয়ে স্ত্রী তার লন্ডন প্রবাসী ভাই আব্দুর রহিমের কাছ থেকে ধারে প্রায় ৮ লাখ টাকা স্বামীকে এনে দেন। তার পর স্ত্রীর বড়ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুর রহিমের কাছ থেকে ১৫লাখ টাকার (ঢাকা মেট্রো চ ১৩-১৪১৫) নাম্বার নোহা গাড়ি এনে দেন স্ত্রী রুমি। কিন্তু টাকা আর গাড়ি এনে দিলেও তার উপর স্বামীর নির্যাতন কমেনি। তাছাড়া গাড়িটিও নিজে ব্যবহার না করে প্রতারণা করে বিক্রি করে দেন তার প্রতারক স্বামী আহমদ আলী। এনিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ঝটির পর সর্বশেষ গত রমজান মাসে বাবার বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী আর তার স্বামীর বাড়িতে ফিরে আসেন নি। এই সুযোগে স্ত্রীকে না জানিয়ে মঙ্গলবার গোপনে বালাগঞ্জের একটি গ্রামে বিয়ে করে বাড়ি ফিরেই পুলিশের হাতে ধরা পড়েন ওই লন্ডনী। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে সমন্ধিক আব্দুর রহিম বাদি হয়ে থানায় একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেছেন। বিশ^নাথ থানায় মামলা নং-২৫, তারিখ ৩০/০৭/২০১৯ইং। মামলার প্রেক্ষিতে গ্রেফতারের পর তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সিলেটের জকিগঞ্জ থেকে নোহা গাড়িটি উদ্ধার করে থানা পুলিশ।
এদিকে, যুক্তরাজ্যের ওল্ডহামে বসবাসকারী আহমদ আলী ২০১৮ সালের ১৬ অক্টোবর সিলেটের ওসমানীনগর থানা পুলিশের হাতে এক যুবতী ও সহযোগীসহ ধরা পড়েন। সিলেটের ওসমানীনগর থানায় দায়েরকৃত মামলা নং ২৯/১৮ইং। ধরা পড়ার পর পুলিশের কাছে ব্রিটিশ পাসপোর্ট ছিঁড়ে ফেলার মিথ্যা বায়ন দেন। মঙ্গলবার প্রতারণা মামলায় বিশ^নাথ থানা পুলিশের কাছে ধরা পড়েও একই বক্তব্য দেন তিনি। অভিযোগ রয়েছে, অদৃশ্য কারণে পুলিশের কাছে বারবার ব্রিটিশ পাসপোর্ট ছিঁড়ে ফেলার বয়ান দিচ্ছেন তিনি। আসলে ব্রিটিশ পাসপোর্ট দেখিয়েই বার বার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন ওই প্রবাসী আহমদ আলী।

বিশ্বনাথ থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম এ প্রতিবেদককে বলেন, অনেক ক্রাইমের সঙ্গেও জড়িত থাকায় াহমদ আলীকে আদালতে না পাঠিয়ে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আর তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে শশুরবাড়ি থেকে এনে বিক্রি করা গাড়িটি বৃহস্পতিবার জকিগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Facebook Comments
advertisement

Posted ৯:৪৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০১ আগস্ট ২০১৯

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com