বুধবার ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

বানিয়াচং ৫/৬নংবাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ, কর্তৃপক্ষ বললেন মেয়াদোত্তীর্ণের বিষয়টি জানা ছিল না

বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০     115 ভিউ
বানিয়াচং ৫/৬নংবাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ, কর্তৃপক্ষ বললেন মেয়াদোত্তীর্ণের বিষয়টি জানা ছিল না

মখলিছ মিয়া,বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) থেকে : হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আওতাধীন ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে সরেজমিন এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

গত ক’দিন পূর্বে তোপখানা এলাকার জনৈক কয়েকজন মহিলা বানিয়াচং ৫/৬নং বাজারে অবস্থিত উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যান চিকিৎসা করাতে। এসময় তাদের হাতে তুলে দেয়া হয় কিছু আয়রণ ট্যাবলেট। এ ট্যাবলেটগুলো হাতে নেয়ার পর দেখতে পান এই ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে জুন/২০ ইং মাসে। অথচ জুলাই মাসে তাদের হাতে এ ট্যাবলেটগুলো দেয়া হয়। এ বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও বিষয়টি তারা আমলে নেয়নি।

৮ জুলাই বুধবার বেলা ১২ টায় ওই উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় বিতরণ টেবিলের উপরে মেয়াদত্তোর্ণী ট্যাবলেটগুলো রাখা হয়েছে। অথচ এ ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে গত জুন মাসেই। মেয়াদত্তোর্ণী ট্যাবলেটগুলো এখনো কেন বিতরণ টেবিলে রাখা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে দায়িত্বশীলরা জানান, মেয়াদত্তোর্ণী বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না।

এ বিষয়ে কথা হয় বানিয়াচং ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়িত্বরত ডাঃ সালাউদ্দিন সজীব এর সাথে, তিনি মেয়াদোত্তর্ণী ঔষধের বিষয়ে কিছু জানতেন না বলে জানান। জুন মাসের ঔষধ জুলাই মাসে কেন বিতরণ করা হচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি কোন সদোত্তর দিতে পারেননি। এ বিষয়ে কথা হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ইউএইচও ডাঃ আবুল হাদী মোহাম্মদ শাহ পরান এর সাথে তিনি জানান, এই মাত্র আপনার মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম, মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষটি বিতরণ করা ঠিক হয়নি বলে তিনি দায়িত্বরতদের আরো দায়িত্ববান হওয়ার জন্য আহবান জানান।

এ দিকে এ বিষয়ে এলাকার লোকজনের সাথে কথা হলে তারা জানান, সরকারী ঔষধ নামে আছে কাজে নাই। এভাবে দিনের পর দিন মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ করে মূল ঔষধ লাপাত্তা করে দেয়ার অভিযোগও তুলেন এলাকাবাসী। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবীও জানান এলাকাবাসী।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:১৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com