মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দোয়ারায় খাস ভূমি জবর দখল করে দোকানের স্থায়ী ভবন নির্মাণের অভিযোগ

মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 28 ভিউ
দোয়ারায় খাস ভূমি জবর দখল করে দোকানের স্থায়ী ভবন নির্মাণের অভিযোগ
আশিক মিয়া, দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি : দোয়ারাবাজার উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের পানাইল গ্রামের বিয়ানীবাজারে হালটের ডুবা খাস জমি দখল করে বিয়ানীবাজারে স্থায়ী পাকা দোকান ঘর নির্মাণ করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করেছেন দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নকিব উদ্দিনের পুত্র মো.আলী হোসেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, দোহালিয়া ইউনিয়নের পানাইল গ্রামের মৃত গোলাম কিবরিয়ার পুত্র সাবেক ইউপি সদস্য জিয়াউল হক, তারই ভাই ফুলক মিয়া, একই গ্রামের মৃত ফয়জুল হকের পুত্র রায়হান ও আনান মিয়ার বিরোদ্ধে জোর পুর্বক খাস জমি জবর দখল করে দালান কোটা নির্মাণের অভিযোগ করেছেন মো.আলী হুসেন।সাবেক ইউপি সদস্য জিয়াউল হকের নেতৃত্বে খাস জমি জবর দখল করে আসছে তারা। খাস ভূমির সাথে আলী হোসেনের রেকডিয় ভূমির অংশ বিশেষ থাকায় সে অভিযোগ করায়, জিয়াউল হক, আলী হোসেন তাকে প্রকাশ্যে মেরে ফেলার হুমকিও প্রধান করে।

সোমবার (১১ ফেব্রুঃ) বিকালে উপজেলা ভুমি অফিসের কাননগো পিয়ার আহমদ, সার্ভেয়ার নুরে আলম, চেইনম্যান দানু মিয়া, মঙ্গলপুর ভূমি অফিসের তহসিলদার আশিশ কুমার দাস, অফিস সহকারী লিটন মিয়া, আলী হোসেনের অভিযোগের ভিত্তিতে বিয়ানীবাজারে সরে জমিনে তদনন্তে এসে সাবেক ইউপি সদস্য জিয়াউল হক ও আশপাশের দোকান ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে রাখার নির্দেশ দেন তারা।

এসময় সাবেক ইউপি সদস্য জিয়াউল হক ও তার অনুসারিরা আলী হোসেন ও তার ছোট ভাই জাবেদ নকিবকে মারপিট করার চেষ্টা চালায়।জাবেদ নকিব বলেন, খাস জায়গা সহ তারা আমাদের রেকর্ডিয় জমি জোড় দখল করে দালান ঘর নির্মাণ  করছে তারা আমরা এতে বাঁধ প্রধান করি এতে করে ইউপি সদস্য জিয়াউল হক ও তাদের অনুসারীরা আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।পরে আমরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

অভিযোগকারী আলীহোসেন বলেন,  সরকারি খাসজমি ও আমার রেকডিয় ভুমির অংশ জবর দখল কারীর বিরোদ্ধে অভিযোগ করায় জিয়াউল হক আমাকে প্রকাশ্যে জনসম্মুখে হত্যার হুমকি দেয়। নিরুপায় হয়ে আমি দোয়ারাবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা বলেন, খাসজমি জবর দখলের একটি অভিযোগ পেয়েছি। বর্তমানে দালান নির্মাণের কাজ বন্ধ আছে। খাস জমি দখলের ব্যারে পরবর্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
advertisement

Posted ৮:২৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com