বুধবার ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

দক্ষিণ সুনামগঞ্জের চোরাই যাওয়া সিএনজি সিলেটে উদ্ধার, আটক ৮

শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 57 ভিউ
দক্ষিণ সুনামগঞ্জের চোরাই যাওয়া সিএনজি সিলেটে উদ্ধার, আটক ৮

কাজী জমিরুল ইসলাম মমতাজ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা এলাকার ছয়হারা বাগেরকোনা গ্রাম থেকে চোরাই যাওয়া সিএনজি(ফোরষ্টোক) গাড়ী সিলেটের বিমানবন্দর থানা এলাকার দোপাগুল এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ

সূত্রে জানা যায়, বুধবার(৪ ডিসেম্বর) দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দলের অভিযানে চোরাই সিএনজি সিডিকেটের ৮সদস্যকে সুনামগঞ্জের ছাতকের, সিলেটের ওসমানী নগরের ও বিমানবন্দর থানা এলাকার দোপাগোল এলাকা হতে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়। পরে চোরাই যাওয়া সিএনজি (ফোরষ্টোক) গাড়ীর মালিক বাদী হয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় আটক চোরাই সিএনজি সিডিকেটের ৮সদস্য ছাতক থানা এলাকার ভাঁতগাঁও গ্রামের মৃত তজম্মুল হোসেনর ছেলে তোফায়েল আহমদ (৩৭), ওসমানী নগর থানা এলাকার আমিনপুর গ্রামের মৃত আরকান আলীর ছেলে মৌর আলী (৫০),বিশ^নাথ থানা এলাকার খাসজান গ্রামের মৃত আরকান উল্লাহের ছেলে রফিজ উল্লাহ (৪০), সিলেট বিমানবন্দর থানার দোপাগুল গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২৫), জকিগঞ্জ থানার পল্লীশ্রী গ্রামের মৃত ফয়জুর রহমানের ছেলে সোহেল মিয়া (২৫), সিলেট ওসমানী নগর থানার আমিনপুর গ্রামের মৃত ছালিক মিয়ার ছেলে মুহিবুর রহমান (২৮), একই থানার লামাপাড়া গ্রামের আসাব হোসেনের ছেলে হোসাইন আহমদ (৩৯) ও মৃত একরাম উল্লাহের ছেলে করিম আহমদ (২৮)। গ্রেফতারকৃতদেরকে বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মামলার বাদী বাগেরকোনা গ্রামের নাহিদ রহমান জানান, গত মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সারাদিন আমি আমার সিএনজি গাড়ী চালাই রাতে আমার বসত বাড়ীতে বন্ধ করিয়া রাখি। পরদিন বুধবার (১৩ নভেম্বর) ভোর অনুমান ৬টার সময় ঘুম হতে উঠে দেখতে পাই যে, আমার বসত বাড়ীর উঠানে রাখা আমাদের সিএনজি (ফোরষ্টোক) অটোরিক্সা (অনটেষ্ট) গাড়ীটি আমাদের উঠানে নাই। পরে থানায় সাধারণ ডায়রী করি। থানা পুলিশ সাধারণ ডায়রীর ভিত্তিতে অনুসন্ধান চালিয়ে আমার গাড়ীটি উদ্ধার করেন।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্রে জানান যায়, ওসি মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরীর নির্দেশনায় চোরাই যাওয়া সিএনজি উদ্ধারে মোবাইল ফোনের সহযোগিতা ও অনুসন্ধান অব্যাহত রাখে পুলিশ। প্রথমে ভাতগাঁও গ্রামের তোফায়েলকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁর তথ্যের ভিত্তিতে একই গ্রামের রমিজ উদ্দিনকে আটক করে থানা পুলিশ। তার তথ্যের ভিত্তিতে সিলেটের ওসমানীনগরের আমিনপুরে অভিযান পরিচালনা চালিয়ে আসামী মৌর আলীকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি মতে একই থানার লামাপাড়া গ্রামের অভিযান চালিয়ে হোসাইন আহমদ ও আমিনপুর গ্রামের মুহিবুর রহমানকে আটক করা হয়। পরে তাদের তথ্যের ভিত্তিতে সিলেটের বিমানবন্দর থানা এলাকার দোপাগুল গ্রামের দোলোয়ার হোসেনর বসত বাড়ী হতে চোরাই সিএনজি গাড়ী উদ্ধার করে পুলিশ। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অপরাধী যেই হউক, তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা পুলিশের কাজ। তাই চোরাই সিএনজি গাড়ী উদ্ধারে তদন্তকারী অফিসার দ্রæততার সাথে চোরাই সিএনজি উদ্ধার ও জড়িতদের গ্রেফতার করেছেন। আগামী দিনেও থানা পুলিশের এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Facebook Comments
advertisement

Posted ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

Sylheter Janapad |

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com