রবিবার ১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ছাতকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করে বিপাকে এক প্রবাসী পরিবার

সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 86 ভিউ
ছাতকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করে বিপাকে এক প্রবাসী পরিবার

ছাতক প্রতিনিধিঃ

ছাতকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করে বিপাকে পড়েছে এক প্রবাসী পরিবার। আসামীরা মামলা তুলে নিতে নিয়মিত ভয়ভীতি প্রদর্শন করে প্রবাসী পরিবারকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। প্রতিপক্ষরা মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে গত ৩ জানুয়ারী প্রবাসীর বসত বাড়িতে হামলা চালায়।

হামলাকারীরা প্রবাসীর স্ত্রী সালমা বেগমের শ্লীলতাহানীসহ বসতঘর ভাংচুর ও লুটপাট চালানোর অভিযোগ এনে ছাতক সদর ইউনিয়নের বড়বাড়ী গ্রামের সৌদি প্রবাসী শফিকুল ইসলামের স্ত্রী সালমা বেগম গত ৫ জানুয়ারী সুনামগঞ্জ আমল গ্রহনকারী জুডিশিয়াল মাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, হামলাকারীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকলেও পুলিশ তাদের ধরতে পারছে না। সরকার দলীয় এক নেতার আশ্রয়-প্রশ্রয়ে থাকা এসব আসামীরা বার-বার অপরাধ সংঘঠিত করেও পার পেয়ে যাচ্ছে। প্রবাসী শফিকুল ইসলামের সাথে গ্রামের কতিপয় ব্যক্তির বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে গত ১২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় প্রবাসী শফিকুল ইসলামের বাড়িতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষরা। হামলায় প্রবাসী ও তার স্ত্রী সালমা বেগমসহ ৫ ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়। আহতদের ভর্তি করা হয় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এ ঘটনায় সালমা বেগম বাদী হয়ে গ্রামের ইমরান, রুবেল, এখলাছসহ ৭জনের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আসামীদের মধ্যে ক’জন জামিনে এসে বাদীনির পরিবারের উপর চড়াও হয়। মামলা তুলে নিতে তারা প্রবাসী এ পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকী-ধামকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকে।

আসামীরা বেপরোয়া হয়ে গত ৩ জানুয়ারী আবারো প্রবাসীর বসত বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় হামলাকারী লুটপাট ও ভাংচুরের পাশাপাশি প্রবাসীর স্ত্রী সালমা বেগমের শ্লীলতাহানী ঘটায়।

এ ঘটনায় সালমা বেগম ৭জনের বিরুদ্ধে ৫ জানুয়ারী সুনামগঞ্জ আমল গ্রহনকারী জুডিশিয়াল মাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা(নং-০৪/২০২০) দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে ছাতক থানায় তদন্তাধীন রয়েছে।

বাদী সালমা বেগম জানান, বর্তমানে আসামীদের ভয়ে তিনি ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন। এ ব্যাপারে ছাতক থানার এসআই ও এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পীযুষ কান্তি দে জানান, মামলাটি তদন্তাধীন আছে। শীঘ্রই আদালতে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

Facebook Comments
advertisement

Posted ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(140 ভিউ)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com