বুধবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ছাতকে লবন সংকটের গুজবে লংকাকান্ড: দু’ব্যবসায়ীর ২০ হাজার টাকা জরিমানা

বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯     128 ভিউ
ছাতকে লবন সংকটের গুজবে লংকাকান্ড: দু’ব্যবসায়ীর ২০ হাজার টাকা জরিমানা

 

ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকে লবন সংকটের গুজবে লংকাকান্ডের সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত লবন সংগ্রহে দোকানে-দোকানে হুমড়ি খেয়ে পড়তে দেখা গেছে ক্রেতা সাধারনকে। লবন সংকট ও লবন সংগ্রহের ঘটনায় গোটা শহরে হুলস্থুল কান্ড ঘটে।

সোমবার রাত ৮ টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লবন সংগ্রহের মিছিল চলছিল শহর এলাকায়। একাধিক ব্যক্তি জানান, লবন সংকটের খবর শহর থেকে গ্রামাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়লে গ্রামের মানুষ মোবাইল ফোনে শহরে থাকা স্বজনদের মাধ্যমে লবন সংগ্রহের অনুরোধ করেছেন। এ সুযোগে এক শ্রেনীর অসাধু ব্যবসায়ী দু’ থেকে তিন গুন দামে লবন বিক্রি করেছেন। ২৫ টাকার লবন ৫০ থেকে ৮০ টাকায় এবং ৩৫ টাকা কেজির লবন ১ শ’ থেকে ১২০ টাকায়ও বিক্রি করেন এসব সুযোগ সন্ধানী ব্যবসায়ীরা।

লবন নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় শহর থেকে গ্রামাঞ্চল পর্যন্ত। কিন্তু কেন বা কোন কারনে লবনের সংকট সৃষ্টি হয়েছে তা কেউ জানেন না। ঘটনা সত্য, না গুজব তা জানার আগেই অন্তত কয়েক কেজি লবন নিজ সংগ্রহে রাখার প্রয়োজনীয়তা সাধারণ মানুষের মধ্যে লক্ষ্য করা গেছে। তবে বিষয়টি মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার আগেই প্রশাসনের কঠোর হস্থক্ষেপে গুজব নিয়ন্ত্রনে আনা সম্ভব হয়।

রাত ১০ টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ গোলাম কবির ও সহকারী কমিশনার(ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাপস শীলের নেতৃত্বে মাঠে নামে দুটি মোবাইল কোর্ট। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ গোলাম কবির গোবিন্দগঞ্জ বাজারের গ্রোসারী দোকানে উপস্থিত হয়ে লবন বেশী দামে বিক্রি না করার জন্য বিক্রেতাদের সতর্ক করেন পাশাপাশি লবন সংগ্রহের বিষয়টি পুরোপুরি গুজব বলে বিচলিত না হওয়ার জন্য ক্রেতা সাধারনকে পরামর্শ দেন।

এদিকে ছাতক শহরে লবন নিয়ে সৃষ্ট লংকাকান্ড সহজেই নিয়ন্ত্রন করতে সক্ষম হন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাপস শীল। তিনি মাঠে নেমেই দোকানীদের সতর্ক করেন এবং অধিক মুল্যে বিক্রি করা লবেনের বাড়তি টাকা দোকানীদের কাছ থেকে ফেরত নিয়ে ক্রেতাদের বুঝিয়ে দেন। বেশ কয়েকজন অসাধু ব্যবসায়ী লবনের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি ও চড়া মুল্যে বিক্রির চেষ্টায় লিপ্ত ছিল বলে ক্রেতারা জানিয়েছেন।

এদিকে লবন বাজার মুল্যের চেয়ে অধিক মুল্যে বিক্রির অপরাধে শহরের আলী ট্রেডার্সের মালিক সাইদুল আলম মধুকে ১৫ হাজার ও রায় ব্রাদার্সের মালিক নিতাই রায়কে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়। বর্তমানে ছাতকে লবন নিয়ে সৃষ্ট গুজব কেটে গিয়ে লবনের বাজার স্থিতিশীল রয়েছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(248 ভিউ)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com