রবিবার ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

গোয়াইনঘাটে প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে জাল দলিল, থানায় মামলা, অভিযুক্তরা পলাতক

মঙ্গলবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০     213 ভিউ
গোয়াইনঘাটে প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে জাল দলিল, থানায় মামলা, অভিযুক্তরা পলাতক
কে এ রাহাত, গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ গোয়াইনঘাট উপজেলার সালুটিকর মৌজায় সালুটিকর বাজারে প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে ৪ শতক ভুমি আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই জমি আত্মসাতের বিষয়টি জানার পর খেকু চক্রের ৮ সদস্যকে আসামি করে তাদের বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন গোয়াইনঘাট উপজেলার নন্দীরগাওঁ ইউনিয়নের বহর গ্রামের মৃত হাজী মনোহর আলীর ছেলে আব্দুল মুহিত।
মামলায় সালুটিকর এলাকার ৮জন ব্যক্তির উপর প্রতারনার অভিযোগ এনে তাদের বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন আব্দুল মুহিত। মামলা-নং ২৯ তারিখঃ ২৫(০৮)২০২০ইং। উক্ত প্রতারনা মামলায় নন্দীরগাওঁ ইউনিয়নের মিত্রিমহল গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর ছেলে শাহীন আহমদকে প্রধান আসামি করে ৮ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। মামলার অপরাপর আসামীরা হলেন, নন্দীরগাওঁ ইউনিয়নের রানীগঞ্জ গ্রামের মৃত আব্দুর রশীদের ছেলে নুরুল ইসলাম, আঙ্গারজুর গ্রামের মৃত শুকুর উল্লাহর ছেলে আব্দুন নূর,  লামাপাড়া গ্রামের সামছুল ইসলামের ছেলে বিলাল আহমদ ও জয়নাল আবেদীন। এছাড়া চারি গ্রামের জয় নারায়ণ দাসের ছেলে অজয় চন্দ্র। বর্তমানে অভিযুক্তরা পুলিশের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।
থানায় রুজু হওয়া অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০০৭ সালের ১২ নভেম্বর গোয়াইনঘাট উপজেলার সালুটিকর মৌজায় ১২১ নাম্বার খতিয়ানের ৪নং দাগে প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে ওই আট জন প্রতারক যোগেশ চন্দ্রের ওয়ারিশ হইতে খরিদ করিয়াছেন বলে প্রচার করেন। প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে উক্ত জমির রেকর্ডিয় মালিক যোগেশ চন্দ্র দাশের ওয়ারিশ সাজিয়া আত্মসাৎ করার উদ্দেশ্যে ওই আট জন প্রতারক ৪ শতক জমির জাল কাবালা সৃষ্টি করেন। ১২ নভেম্বর ২০০৭ সালে মামলায় উল্লেখিত আসামিদের মধ্যে ৬ ও ৮ নাম্বার আসামির সহযোগিতায় মামলায় উল্লেখিত ১-৪ আসামী বরাবরে নালিশী তফসিলের ভুমি হস্তান্তর দেখাইয়া ৪৩১৯/২০০৭ইংনং জাল সাফ কাবালা দলিল সৃষ্টি করেন।
চলতি বছরের ২০ মে উক্ত মামলার ২ নং আসামি নুর ইসলাম নালিশী জমিতে সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে যোগেশ চন্দ্রের ওয়ারিশ হইতে খরিদ করিয়াছেন বলে প্রচার করেন। উক্ত মামলার বাদী তল্লাশী করিয়া তর্কিত কাবালার জাবেদা নকল পাইয়া জানিতে পারেন প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে রেকর্ডিয় মালিক যোগেশ চন্দ্র দাশের ওয়ারিশ সাজিয়া আত্মসাৎ করেছেন।
এব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ বলেন, উপজেলার নন্দীরগাওঁ ইউনিয়নের বহর গ্রামের মৃত হাজী মনোহর আলীর ছেলে আব্দুল মুহিত বাদী হয়ে ৮ জনের উপর জালিয়াতির অভিযোগ মামলা দায়ের করেন। তাই উক্ত অভিযোগের আলোকে গোয়াইনঘাট থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৩৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০

Sylheter Janapad |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
সম্পাদক ও প্রকাশক
গোবিন্দ লাল রায় সুমন
প্রধান কার্যালয়
আখরা মার্কেট (২য় তলা) হবিগঞ্জ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার
ফোন
+88 01618 320 606
+88 01719 149 849
Email
sjanapad@gmail.com